শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী পদে থাকার সাংবিধানিক অধিকার হারিয়েছেন। ডঃ তুহিন মালিক - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Sunday, 6 October 2019

শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী পদে থাকার সাংবিধানিক অধিকার হারিয়েছেন। ডঃ তুহিন মালিক

শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী পদে থাকার সাংবিধানিক অধিকার হারিয়েছেন। ভারতকে বিলিয়ে দেয়া জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী চুক্তি করে প্রধানমন্ত্রী সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন।
স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রের সমুদ্র বন্দর, ফেনী নদীর পানি এবং জ্বালানি সংকট মহাদেশের গ্যাস ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার যে চুক্তি করা হলো তা সুস্পষ্টভাবে সংবিধান পরিপন্থী। এটা বাংলাদেশ সংবিধানের ১৫৪ক অনুচ্ছেদের গুরুতর লঙ্ঘন। যা সংবিধানের ৭ক অনুচ্ছেদের অধীনে সংবিধান লঙ্গন জড়িত রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধের শামিল। সংবিধানের ৭ক অনুচ্ছেদের অধীনে যার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।
বাংলাদেশের সংবিধানের ১৪৫ক অনুচ্ছেদ বলা হয়েছে বিদেশের সাথে সম্পাদিত সকল চুক্তি রাস্ট্রপতির নিকট পেশ করা হবে এবং রাষ্ট্রপতি সংসদে পেশ করিবার ব্যবস্থা করিবেন। কিন্তু সরকার অধ্যবধি ভারতের সাথে কোন চুক্তি সংসদে পেশ করে নি এবং এইসব দেশবিরোধী চুক্তি রাষ্ট্রপতি জানেন কিনা সেটা যেন জনগণের জানার কোন অধিকার নাই। করান রাষ্ট্রপতি যদি এটা জানতেন তাহলে তো তিনি সংবিধানের আলোকে তা সংসদে পেশ এর ব্যবস্থা করতেন।
যদিও বর্তমান সংসদে কার্যকর কোনো বিরোধী দল নেই তার পরেও ভারতের সাথে সম্পাদিত চুক্তিগুলো সংসদে পেশ করলে পত্রপত্রিকার মাধ্যমে দেশের জনগণ তার বিস্তারিত জানতে পারত ভারতের সাথে সরকার কি কি করেছে তা জানার অধিকার বাংলাদেশের জনগণের অবশ্যই রয়েছে এই অধিকার দেশের জনগণকে দেশের সংবিধান দিয়েছে।
রাষ্ট্রবিরোধী ও জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী এইসব চুক্তি করে প্রধানমন্ত্রী তার সাংবিধানিক শপথ ভঙ্গ করেছেন, তিনি দেশের স্বার্থ রক্ষা তার কৃত শপথ ভঙ্গের প্রমাণ দিয়েছেন, নিজ দেশের স্বার্থের চাইতে বিদেশের স্বার্থ রক্ষা করেছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর পদে থাকা সাংবিধানিক অধিকার হারিয়েছেন।
লেখকঃ ডঃ তুহিন মালিক বিশিষ্ট আইনজীবী ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ।

No comments:

Post a Comment

Home