কাশ্মীরে ভারতীয় আগ্রাসনের প্রতিবাদে আজ (শুক্রবার) বাদ জুম্মা লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে বিক্ষোভ সমাবেশ - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Friday, 9 August 2019

কাশ্মীরে ভারতীয় আগ্রাসনের প্রতিবাদে আজ (শুক্রবার) বাদ জুম্মা লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে বিক্ষোভ সমাবেশ


 হোসাইন : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে কাশ্মীরে ভারতীয় আগ্রাসনের প্রতিবাদে আজ (শুক্রবার) বাদ জুম্মা লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুুিষ্ঠত হয়।
জেলা সভাপতি অনারারী ক্যাপ্টেন (অবঃ) মোহাম্মদ ইব্রাহীমের সভাপতিত্বে ও জেলা সেক্রেটারি মাওলানা মহিউদ্দিনের পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার আন্তর্জাতিক নীতি ও আদর্শ বিসর্জন দিয়ে শ্বায়ত্বশাসিত কাশ্মীরের জনগণের নাগরিক ও মানবিক অধিকার হরণ করে সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে লক্ষ লক্ষ সেনাবাহিনী মোতায়েন ও ১৪৪ ধারা জারি করে গোটা কাশ্মীরকে কারাগারে পরিণত করেছে। এতে সমগ্র বিশ্ব মুসলিম ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। আমরা প্রতিবেশী রাষ্ট্র হিসেবে আমাদের কাশ্মীরের দ্বীনি ভাইদের রক্তাক্ত পরিস্থিতি মেনে নিতে পারি না। ভারতের কাশ্মীরের স্বাধীনতা রোখা যাবেনা, কাশ্মীরের জনগণ ভারতের আধিপত্যবাদ কোন দিন মেনে নিবে না। জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে মুসলমানের আজাদী আন্দোলনকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। কাশ্মীর থেকে মুসলিম নিধনের স্বপ্ন সফল হবে না ইনশাআল্লাহ। সমস্ত বিশ্বের মুসলিম উম্মাহ কাশ্মীরের জনগণের সাথে রয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে ক্যাপ্টেন ইব্রাহীম বলেন, ভারতের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে কাশ্মীরের গণহত্যার প্রতিবাদ করা বাংলাদেশ সরকারের এই মুহূতে প্রথম কর্তব্য। যদি গণহত্যা অব্যাহত রাখে তাহলে সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম রাষ্ট্র হিসাবে কাশ্মীরিদের পক্ষে অবস্থান করতে হবে। কাশ্মীরের মুসলমান ভাইদের উপর চলমান প্রতিদিনের জুলুম নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমাদের গর্জে উঠতে হবে।
লক্ষ্মীপুর শহরের দক্ষিণ তেমুহনী মার্কাজ মসজিদ চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক পদক্ষিণ করে উত্তর তেমহনী প্রেসক্লাব চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয়। মিছিল পরবর্তী সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা সহ সভাপতি মাওলানা দেলোয়ার হোসাইন, যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা আ হ ম নোমান সিরাজী, মাওলানা জহিরুল ইসলাম ও ছাত্র নেতা মোঃ নুরুুল আলম প্রমূখ।

No comments:

Post a Comment

Home