রামগঞ্জে চাঁদা না দেওয়ায় নির্মাণাধীন ভবনের কাজ বন্ধ করে দেয় দুস্কৃতিকারীরা - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Tuesday, 27 August 2019

রামগঞ্জে চাঁদা না দেওয়ায় নির্মাণাধীন ভবনের কাজ বন্ধ করে দেয় দুস্কৃতিকারীরা

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম টামটা গ্রামের মুসাপুর ভূঁইয়া বাড়ির হানিফ ভূঁইয়ার নির্মাণাধীন ইমারত কাজ বন্ধ করেছে দুষ্কৃতিকারীরা। ভুক্তভোগী হানিফ ভূঁইয়ার অভিযোগ চাহিদামত নির্দিষ্ট সময়ে চাঁদার টাকা না দেওয়ায় দুস্কৃতিকারীরা ঠুনকো অজুহাতে নির্মাণাধীন ভবনের কাজ বন্ধ করে দেয়। এতে করে নির্মাণ সামগ্রী ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন তিনি।
সৃষ্ট ঘটনা নিরসনে ভুক্তভোগী হানিফ ভূঁইয়া রামগঞ্জ থানা ও পৌরসভায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগসহ ভুক্তভোগী হানিফ ভূঁইয়া বলেন সম্পত্তি বিরোধকে কেন্দ্র করে একই বাড়ির উল্লাহ শামিম মামুন ইয়াসিন হোসেনের নেতৃত্বে দুর্বৃত্ত দিয়ে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়। তিনি বলেন ২০০৫ সালে সম্পত্তির বিরোধের জের ধরে অভিযুক্তরা তাকে রক্তাক্ত জখম করে, সৃষ্ট ঘটনায় আদালতে মামলা রুজু হয় মামলা চলাকালে স্থানীয়ভাবে গ্রাম্য সালিশ  ৬৩নং ছমেদপুর মৌজার জেলা জরিপী ২ নং ক্ষতিয়ান ভুক্ত বাড়ির সবগুলো সম্পত্তি পরিমাপ করে  আলাদা প্লটে ভাগ করেন উক্ত সম্পত্তি পরিমাপ করে দু.পক্ষের মধ্য আপোষ করেন। আপোষ নামায় উভয় পক্ষের স্বাক্ষর করেন।
সবাই নিজের প্লটে সম্পত্তি বুঝিয়ে নিয়ে  ভোগ-দখলে রয়েছে। হানিফ ভূঁইয়ার মালিকানা ও দখলীয় সম্পত্তিতে  ইমারত নির্মাণে মাঝামাঝি সময়ে তার স্ত্রী বিলকিছ বেগমের কাছ থেকে একই বাড়ির মামুনের নামে ইয়াছিন ১লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন। চাঁদা টাকা না দেওয়ায় ঠুনকো অজুহাতে ইমারত নির্মাণ কাজ বন্ধ করে ক্ষতিগ্রস্থ করেন।
অভিযুক্তদের সাথে একাধিকবার চেষ্টা করেও তাদেরকে পাওয়া যায়নি।
হানিফ ভূইয়ার অভিযোগ তদন্তকারী থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক শরীফ হোসেন জানান বাদী পক্ষের অার্থিক ক্ষতিগ্রস্থ ঘটনাটি সত্যতা মেলেছে। বিরোধপূর্ণ ঘটনাটি দ্রুত নিরসনে প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

No comments:

Post a Comment

Home