রামগঞ্জে যুবককে মারধরের অভিযোগে গ্রামবাসীর মানববন্ধন - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Tuesday, 13 August 2019

রামগঞ্জে যুবককে মারধরের অভিযোগে গ্রামবাসীর মানববন্ধন


ঈদের আগের রাতে জেলার রামগঞ্জ উপজেলার উত্তর টিউরী গ্রামের জহিরুল ইসলাম ঝন্টু (৩৭) নামের এক যুবককে মিথ্যা চুরির অভিযোগে বেধম মারধর করেছে একদল দূর্বৃত্ত। জনৈক প্রবাসীর অনুপস্থিতে তার স্ত্রী ঘরে প্রবেশের অভিযোগ এনে ঝন্টুকে গাছের সাথে বেঁধে বেধম মারধর করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে ঈদের আগেরদিন রবিবার দিনগত গভীর রাতে উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের উত্তর টিউরী গ্রামে।
এদিকে জহিরুল ইসলাম ঝন্টুকে নারকীয় প্রক্রিয়ায় গাছের সাথে বেঁধে মারধরের অভিযোগ এনে মানববন্ধন করেছে উত্তর টিউরী ও দুধরাজপুর গ্রামের স্থানীয় লোকজন। ঈদের দিন গতকাল সোমবার বিকালে উত্তর টিউরী বাছির মার্কেটের সামনে এলাকার শত শত মানুষ এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে উপস্থিত লোকজন জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে উত্তর টিউরী গ্রামের বক্সে আলী খলিফা বাড়ীর সৌদি প্রবাসী আবদুর রশিদের স্ত্রীর ভাড়াটিয়া লোকজন একই এলাকার আফাজ উদ্দিন ভূইঁয়া বাড়ির মন্তাজ মিয়ার ছেলে জন্টুকে ডেকে নিয়ে একটি বাগানে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে বেধম মারধর করে।
খবর পেয়ে স্থানীয় জনতা একত্রিত হয়ে রাতে গাছে বাঁধা আহতবস্থায় ঝন্টুকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন, এমদাদ হোসেন শাকিল, আবুল বাশার মোল্লা, মুজিবুল হক মোল্লা, তারিক আজিজ, শহিদ মোল্লা, দুলাল হোসেন, মামুন হোসেন, ইকবাল হোসেন ও হাবিবসহ এলাকাবাসী জানান, সত্য ঘটনাটি আড়াল করতে ঝন্টুকে চোর আখ্যায়িত করে রামগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এলাকাবাসী উক্ত ঘটনার রহস্য উৎঘাটনে রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জের কাছে অনুরোধ করেন মানববন্ধনে।
মানববন্ধনে উপস্থিত হওয়া সকলেই জানান, জন্টু কখনও এলাকায় চুরিসহ কোন অপরাধের সাথে জড়িত ছিলেন না। ঝন্টুর উপর হামলার সঠিক বিচার দাবি করা হয় মানবন্ধন কর্মসূচিতে।

No comments:

Post a Comment

Home