অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত রামগঞ্জ সোনাপুর সড়কটির সংস্কার কাজের উদ্বোধন - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Thursday, 1 August 2019

অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত রামগঞ্জ সোনাপুর সড়কটির সংস্কার কাজের উদ্বোধন

অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে উদ্বোধন করা হলো রামগঞ্জ শহরের ব্যস্ততম সড়কটি। রামগঞ্জ থেকে সোনাপুর পর্যন্ত ১৭০০  মিটার এই রাস্তাটি দীর্ঘদিন যাবত সংস্কার না করায় জনজীবনে ব্যাপক ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে। অবশেষে রামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জনাব আবুল খায়ের পাটোয়ারী দীর্ঘ প্রতীক্ষিত এই রাস্তাটি মেরামত করার উদ্যোগ নিলেন, উক্ত রাস্তাটি সংস্কার করার উদ্যোগ নেওয়ায় স্থানীয় শহরবাসী সাধুবাদ জানিয়েছেন।

চলাচলের অনুপযোগী এই রাস্তাটি নতুন রূপে নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন জনাব আবুল খায়ের পাটোয়ারী মেয়র রামগঞ্জ পৌরসভা। রামগঞ্জ সোনাপুর এর মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া এই সড়কটি শহরের অভ্যন্তরে চলার একমাত্র পথ অথচ এই রাস্তাটি দীর্ঘ একযুগ ধরে ছিল খানাখন্দকে ভরপুর ২০১০ সাল থেকে এই রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। দীর্ঘদিন থেকে রাস্তাটি সংস্কার করা হয়নি অবশেষে সেই কাঙ্খিত সংস্কার কাজের উদ্বোধন করলেন মাননীয় মেয়র সাহেব।
দীর্ঘদিন থেকে রামগঞ্জ শহরবাসী ও এ রাস্তায় চলাচল কারী ক্রেতা সাধারণ জনপ্রতিনিধিদের সুবুদ্ধির উদয় না হওয়ায় রাস্তাটি রামগঞ্জ বাসীর জন্য কলংক হিসেবে ধরে নিয়েছিল। সাধারণ মানুষের ধারণা হয়ে গিয়েছিল যে এ রাস্তাটি হয়তো আর কখনো সংস্কার করা হবে না কিন্তু সকলের ধারণা কি ভুল প্রমাণিত করে জনাব আবুল খায়ের পাটোয়ারী মেয়র রামগঞ্জ পৌরসভা রাস্তাটি সংস্কার করা উদ্যোগ নিলেন।
পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সম্মুখ থেকে নুর-প্লাজা হয়ে সোনাপুর কলাহাটা পর্যন্ত ১৭শত মিটার টেন্ডারের মাধ্যমে ওয়ার্ক ওয়াডার প্রদান করেন। সে আলোকে মেসার্স আহসান হাবীব অরুন এবং মেসার্স ইম্পেরিয়াল কন্সট্রাসন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষে রামগঞ্জের অভিজ্ঞ ঠিকাদার হাজী আকবর হোসেন পাটওয়ারী বুধবার ৩১/০৭/১৯ইং রাস্তাটির পুন:নির্মান কাজ শুরু করেণ। মেয়র আবুল খায়ের পাটওয়ারী রামগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী- সমাজসেবক- শিক্ষানুরাগী হাজী জাহাঙ্গীর হোসেন পাটওয়ারীসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ নিয়ে দুপুরে ওই কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
এসময় দু'বাজারের শতশত ব্যবসায়ী, পথচারীসহ সচেতন মহলের পক্ষথেকে মেয়র আবুল খায়ের পাটওয়ারী এবং ঠিকাদার আকবর হোসেন পাটওয়ারীকে অভিনন্দন জানান। এসময় মেয়র জানান, রাস্তাটিতে মোট ব্যায় হবে ৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। অত্যান্ত টেকসই হবে নির্মান কাজ। পৌরসভার অন্যান্য সড়ক গুলোও এভাবেই নির্মিত হবে। আকবর হোসেন পাটওয়ারী জানান, ৮ সিসি ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও সড়কবাতি সংযোজিত রাস্তাটি হবে অত্যাধুনিক।

1 comment:

Home