কৃষিমন্ত্রীর নৌকা ভ্রমনের ছবি ভাইরাল - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Saturday, 8 June 2019

কৃষিমন্ত্রীর নৌকা ভ্রমনের ছবি ভাইরাল

গত বৃহস্পতিবার থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে কৃষি মন্ত্রী ডঃ আব্দুর রাজ্জাক এর একটি ছবি লক্ষ লক্ষ ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীরা তাদের টাইমলাইনে ছবিটি শেয়ার করতে দেখা গেছে ছবিটি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছেন।
শেয়ার করা পোস্ট এই ইতিবাচক ও নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন অনেকে তবে এসব মন্তব্য মাঝে নেতিবাচক মন্তব্য বেশি দেখা যায়। কৃষিমন্ত্রীর ভাইরাল সেই ছবিতে দেখা যায় খোলা একটি নৌকার পাটাতনে মুখোমুখি দুটি সোফা রয়েছে আর একটি সোফায় হাস্যোজ্জ্বল মুখে বসে আছেন কৃষি মন্ত্রী ডঃ আব্দুর রাজ্জাক তার সঙ্গে নৌকায় নারী-শিশুসহ আরো কয়েকজনকে দেখা গেছে।
নৌকাটি ঘন জঙ্গলের পাশ কেটে গন্তব্যের দিকে যাচ্ছে বেশ খোশ মেজাজে রয়েছেন মন্ত্রী কৃষি মন্ত্রীর এই ছবিকে ঘিরে নানা রকম মন্তব্য করা হয়েছে অনেকে লিখেছেন আমাদের নিজস্ব ঐতিহ্য নৌকা ভ্রমনে যদি সোফা প্রয়োজন হয় তাহলে তিনি কৃষকের সুখ দুঃখ কিভাবে অনুভব করবেন।
একজন ব্যবহারকারী লেখেন কৃষি মন্ত্রী হবেন মাটির মানুষ যার মাটির সঙ্গে শক্ত থাকবে অথচ নিজে এর উল্টা।  সৈয়দা তাজমিরা আক্তার নামে একজন কমেন্ট করেছেন এই সব কর্মকাণ্ড দেখে হতাশ হয়ে যাচ্ছি এরা নিজেদের জনগণের সেবক মনে করেন না। শামীম আহমেদ নামে আরেকজন লিখেন এখন তো মন্ত্রী তাই হয়তো একটু বাড়তি উঠলেন এই আর কি। হোয়াট নামে আরেকজন লিখেন নৌকায় উঠে এমন রাজকীয় ভঙ্গিতে এর আগে কাউকে বসতে দেখি নি হয়তো এর মাধ্যমে ডক্টর রাজ্জাক জানালেন তিনি আমাদের মত সাধারন নাগরিক নন তিনি মন্ত্রী তিনি ভিআইপি।
কেউ কেউ ডঃ আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে সাবেক কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীর অমিল খুঁজে পেয়েছেন প্রবাসী সাংবাদিক ফজলুল বারী নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেন মতিয়া চৌধুরীর সঙ্গে সব কিছুতেই তিনি উল্টা ডিগ্রী কৃষি মন্ত্রী হিসাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একটি ভুল চয়েজ। আরেকজন ব্যঙ্গ করে লেখেন মন্ত্রীর এই প্রমোদতরী ভ্রমণের সময় ওই আশেপাশের খালগুলোর নৌকা আটকে রাখা হয়েছিল কিনা নাকি তিনি উল্টা পথ দিয়ে যাচ্ছেন।
একটি ফেসবুক গ্রুপে লেখা হয়েছে দেশে যখন ধান কাটতে টাকা না থাকায কৃষক জমিতে আগুন দিচ্ছে ধানের দাম না থাকায় কৃষকরা ঈদ করতে পারছে না আত্মহত্যা করতে চেয়েছেন কয়েকজন কৃষক তখন মাননীয় মন্ত্রী নৌকা সোফা লাগিয়ে ভ্রমণে বেরিয়েছে। কৃষকদের এই অবস্থায় কৃষি মন্ত্রীর এমন নৌকা ভ্রমণ কতটা কাঙ্ক্ষিত দেশের মানুষের কাছে এমন সব নেতিবাচক ও ব্যঙ্গাত্মক মন্তব্যের ভিড়ে ইতিবাচক মতামত জানিয়েছেন কেউ কেউ বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন কয়েকজন কেউ কেউ মন্ত্রী সমর্থনের বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি না করতে অনুরোধ করেছেন।
সুব্রত নন্দী নামে একজন লিখেছেন ভাই উনি সহজ সরল মানুষ চাটুকাররা হয়তো পাবো না কে বলেছেন উনি এত কিছু না ভেবে বসে পড়েছেন। একজন বলেন এটা দৃষ্টিকটু হতে পারে কেন ডঃ আব্দুর রাজ্জাক একটি খাঁটি অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষ তবু যদি কারো কাছে বিষয়টি খারাপ লেগে থাকে তাহলে তার ভুল ভেবে মাফ করে দিয়েন।

No comments:

Post a Comment

Home