আমরা দেখতে চাই ঋণখেলাপিদের বিরুদ্ধে সরকার কি অ্যাকশন নেয় ডঃ খন্দকার মোশাররফ হোসেন - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Sunday, 23 June 2019

আমরা দেখতে চাই ঋণখেলাপিদের বিরুদ্ধে সরকার কি অ্যাকশন নেয় ডঃ খন্দকার মোশাররফ হোসেন

জাতীয় সংসদে যে সকল ঋণখেলাপির তালিকা দেওয়া হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার কী ধরনের ব্যবস্থা নেবে তা দেখতে চান বিএনপি'র স্থায়ী কমিটির সদস্য ড খন্দকার মোশাররফ হোসেন। রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট আয়োজিত ২৩শে জুন পলাশী ষড়যন্ত্রের প্রেক্ষাপটে আজকের বাংলাদেশ' শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
ব্যাংকের দলীয়করণের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ নেতাদের সেখানে না বসালে ঋণ খেলাপি হওয়ার কথা নয় বলেও দাবি করেন বিএনপি'র এই নেতা। তিনি বলেন ঋণখেলাপিদের তালিকা সংসদে দেওয়া হয়েছে। এখন আমরা দেখতে চাই সরকার তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয় জনগণের আমানত বিদেশে পাচার করে ব্যাংকগুলোকে খালি করে যারা এই কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার কি করে সেটা দেখতে চাই।
বাংলাদেশ এখন বাজার দখলের প্রতিযোগিতা চলছে উল্লেখ করে খন্দকার মোশাররফ বলেন আধিপত্যবাদ এবং সম্প্রসারণবাদ বাংলাদেশের বাজার দখলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে আজকে সুবিধাবাদী গোষ্ঠীর জন্য অস্বাভাবিক সরকার অস্বাভাবিক একটা বাজেট করছে।
বাংলাদেশের ইতিহাসে এত বড় ব্যবসায়ী কে কখনো অর্থমন্ত্রী বানানো হয়নি উল্লেখ করে ডঃ মোশারফ হোসেন আরও বলেন অর্থমন্ত্রী সুবিধাবাদীদের জন্য বাজেট দিয়েছেন। অপরদিকে মধ্যবিত্তদের উপরে চাপ বেড়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের উপর বানানো হয়েছে। তিনি বলেন মোবাইল ফোনে কর বৃদ্ধি করা হয়েছে ১০০ টাকার মধ্যে ২৭ টাকা চলে যাবে এই একটি উদাহরণ বুঝা যায় এই বাজেট সুবিধাভোগী ব্যবসায়ীদের জন্য করা হয়েছে যারা মুদ্রা পাচার করে ঋণ খেলাপি তারাই এই বাজেট থেকে সুবিধা পাবে।
উন্নয়নের গণতন্ত্রের নামে মেগা প্রজেক্ট করে সরকার জনগণের পকেট থেকে টাকা নিয়ে নিচ্ছে দাবি করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আরো বলেন গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানির বাড়িয়ে কর সম্প্রসারণ করে গরীব মানুষের কাছ থেকে টাকা আদায় করছে সরকার আর এর সুবিধা নিচ্ছে সুবিধাভোগী ব্যবসায়ীরা।
কালো টাকা সাদা করার বিষয়ে তিনি বলেন গত 5 বছরে কারা কালো টাকা কামিয়েছে আওয়ামী লীগের নেতারা আওয়ামী পন্থী ব্যবসায়ীরা তাদের সুবিধা দেওয়ার জন্যই কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখা হয়েছে।
ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট এর সভাপতি লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিমের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি'র ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব অধ্যাপক আব্দুল করিম।

No comments:

Post a Comment

Home