আমি সংসদে কথা বললে সকল সদস্যরা উত্তেজিত হয়ে উঠেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Sunday, 16 June 2019

আমি সংসদে কথা বললে সকল সদস্যরা উত্তেজিত হয়ে উঠেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা

জাতীয় সংসদে কথা বলার জন্য দাঁড়ালে সরকারদলীয় সকল এমপি উত্তেজিত হয়ে উঠেন বলে দাবি করেছেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। তিনি বলেন আমি আমার দলের কথা বলব তারা তাদের দলের কথা বলবে কিন্তু আমি উঠে দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে পুরো সংসদ উত্তেজিত হয়ে ওঠে ৩০০ সংসদ সদস্যরা যদি মারমুখী হয়ে যান তাহলে আমি আমার বক্তব্য কিভাবে রাখব সংসদে? রবিবার ১৬জুন জাতীয় সংসদের ২০১৮-১৯:অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় সংসদের সভাপতিত্বে থাকা ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বি বলেন আমি আপনাকে বিনয়ের সঙ্গে অনুরোধ করবো আপনি এমন কোন কথা বলবেন না যে কথা বলার পর অপরপক্ষ উত্তেজিত হবে এবং সংসদ পরিচালনায় ব্যত্যয় ঘটবে। রুমিন ফারহানা বলেন আমরা সংসদে আসার সময় সংসদ নেতা বলেছিলেন আমরা আমাদের কথা বলতে পারব সংসদ সদস্যরা ধৈর্য সহকারে শুনবেন আমার প্রথম দিনের ২ মিনিটের বক্তব্য এক মিনিট শান্তিতে বলতে পারেনি। একই ঘটনা আজকেও ঘটছে যদি তাই হয় তাহলে কোন গণতন্ত্রের কথা আমরা বলি কোন বাক স্বাধীনতার কথা বলি আমরা কোন সংসদের কথা আমরা বলি এভাবে তো একটা সংসদ চলতে পারে না।
সম্পূরক বাজেট সম্পর্কে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন একটা সরকারের সক্ষমতা ক্রমেই বাড়ার কথা কিন্তু আমরা লক্ষ্য করেছি এই সরকারের সক্ষমতা ধীরে ধীরে কমে আসছে বাজেটের মাত্র ৭৬ শতাংশ আমরা বাস্তবায়ন করতে পারি যে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় সেই রাজস্ব আমরা কখনোই আদায় করতে পারবো না। নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে রুমিন ফারহানা আরো বলেন এই নির্বাচন কমিশন কি ধরনের নির্বাচন করেছে স্থানীয় সরকার নির্বাচন থেকে জাতীয় নির্বাচন পর্যন্ত তাই স্পষ্ট হয়ে গেছে কি ধরনের নির্বাচন হয়েছে এখানে যে সদস্যরা রয়েছেন তারা আল্লাহকে হাজির-নাজির করে সংবিধান জনগণের  ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন কি না।


তিনি আরো বলেন তারা কয়জন জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হয়েছে নিজের বিবেককে প্রশ্ন করুন যদি বিবেক থেকে থাকে আপনাদের নিজেদের উত্তর নিজেই পেয়ে যাবেন কি ধরনের নির্বাচনের মাধ্যমে এই সংসদে এসেছে আমাদের কথা দেওয়া হয়েছিল এই সংসদে আমাদের কথা বলতে দেওয়া হবে এই জন্য এই সংসদ নির্বাচিত নয় জেনেও আমরা সংসদ এ যোগ দিয়েছি কারণ আমাদের মিটিং করতে দেওয়া হয় না ভেবেছিলাম সংসদে জনগণ আমার দল নিয়ে কথা বলতে পারব কিন্তু আমার দুর্ভাগ্য এই সংসদের সরকারি দলের এমপিদের এতোটুকু ধৈর্য নেই আমার কথা শোনার।

No comments:

Post a Comment

Home