চাঁদপুরের ঐতিহাসিক হাজীগঞ্জ বড় মসজিদ প্রস্তুত পবিত্র ঈদের জামাতের জন্য - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Wednesday, 29 May 2019

চাঁদপুরের ঐতিহাসিক হাজীগঞ্জ বড় মসজিদ প্রস্তুত পবিত্র ঈদের জামাতের জন্য

পবিত্র রমজান মাসের শেষ শুক্রবার পবিত্র জুমাতুল বিদা আন্তর্জাতিকভাবে এ দিনকে আল কুদস দিবস হিসাবে বলা হয় পবিত্র জুমাতুল বিদা হচ্ছে রমজান মাসের শেষ শুক্রবার। অনেকে এ শুক্রবার কে গরিবের হজের দিন বলে আখ্যায়িত করে থাকেন।

জুমাতুল বিদা দেশে ছোট বড় সকল মসজিদে মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের সুবিধার্থে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় প্রতি বছরের ন্যায় এবারও চাঁদপুর জেলার সর্ববৃহৎ ঐতিহাসিক হাজীগঞ্জ বড় জামে মসজিদে পবিত্র জুমাতুল বিদা পালনের বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এই মসজিদে বেলা দশটার পর থেকে চাঁদপুরের বিভিন্ন উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা প্রশাসনিক কর্মকর্তা ব্যবসায়ী ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার শিক্ষক ছাত্রসহ জেলার দূর-দূরান্ত থেকে সকল মুসল্লিগণ জুমাতুল বিদা নামাজ আদায় সমবেত হবেন।
মুসুল্লিরা যেন সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে নামাজ আদায় করতে পারে সেই জন্য সড়কে প্রয়োজনীয় কাপড়ের ব্যবস্থা রাখা হবে। মসজিদ কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদ ঈদুল ফিতরের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল আটটায় এবং দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল দশটায় চাঁদপুরের ঐতিহাসিক হাজীগঞ্জ বড় জামে মসজিদে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ সম্পর্কে মসজিদ ব্যবস্থাপনা কমিটির মতোয়াল্লী অধ্যক্ষ মুহাম্মদ আলমগীর কবির পাটোয়ারী চাঁদপুর টাইমস বুধবার জানিয়েছেন মুসলিম উম্মার জন্য এই দিনটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ প্রতি বছরের ন্যায় এবারও জুমাতুল বিদা পালনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে এর মধ্যে সংশ্লিষ্ট সকলের দায়িত্ব বন্টন করা হয়েছে মুসল্লিদের সুবিধার্থে ক্রমাগত নতুন নতুন ব্যবস্থা ও প্রাসঙ্গিক সকল সুবিধা প্রদান করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন নামাজের সময় নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিত রাখার বিষয়ে এর মধ্যে পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগ হাজীগঞ্জ এবং পৌর মেয়র কে বাজার পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার ক্ষেত্রে সর্বাত্মক সহায়তা প্রদানের নির্দেশ দিতে সংশ্লিষ্ট অনুরোধ জানিয়েছেন।

হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদ এর ব্যবস্থাপক মোঃ শাহ আলম বুধবার চাঁদপুর টাইমস কে বলেন দিন দিন মসজিদের সংখ্যা বৃদ্ধিতে ও বর্তমান আবহাওয়ার কথা চিন্তা করে রজনীগন্ধা মার্কেট কওমি মাদ্রাসা ও আলিয়া মাদ্রাসা ও জামাতে নামাজ আদায়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

তাছাড়াও বিশেষ ট্রাফিক ব্যবস্থা আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ প্রায় তিন শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক থাকবে মসজিদ হাজীগঞ্জ বাজারে বিভিন্ন সুবিধাজনক স্থানে বিশেষ ওযুর ব্যবস্থা রাখা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন বর্তমান শতাধিক এতেকাফ অংশগ্রহণকারীর বিভিন্ন প্রকার সেবা প্রদানে মসজিদ কমিটি কাজ করে যাচ্ছে নামাজ পড়াবেন মুফতি আব্দুর রউফ।

No comments:

Post a Comment

Home