ইস্তানবুল বিজয়ের ৫৬৬ বছরঃশুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Thursday, 30 May 2019

ইস্তানবুল বিজয়ের ৫৬৬ বছরঃশুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান

যেসব গঠনের ইতিহাস হয় এবং ইতিহাসের পথ পরিবর্তন করে ইস্তাম্বুল বিজয় তারই অন্যতম একটি ঘটনা।বাইজানটাইন সাম্রাজ্য থেকে ১৪৫৩ সালের ২৯ শে মে ইস্তানবুল বিজয় করেন উসমানি খেলাফতের প্রতিশ্রুতি মহাবীর সুলতান মুহাম্মদ আল ফাতিহ ইস্তানবুল নামে পরিচিত হলেও তখন নগরীর নাম ছিল কনস্টান্টিনোপল।

অবশ্যই কনস্টান্টিনোপল বিজয় হবে কতই না সৌভাগ্যবান এতে নেতৃত্ব দানকারী আমির এবং এই অভিযানে নেতৃত্ব দানকারী সকল বীর সেনানী মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর ভবিষ্যৎ বাণী বাস্তবায়িত হওয়ার পরে ইতিহাসের বারোশো নিরানব্বই সালে প্রতিষ্ঠিত ওসমানী খেলাফত এর মাধ্যমে মুসলিমদের নতুন যুগের সূচনা হয় কনস্টান্টিনোপল বিজয়ের মধ্য দিয়ে।

হাজার 924 সালের 3 মার্চ সে নিভু নিভু প্রায় উসমানি খেলাফতের পতন হলেও ইস্তাম্বুল বিজয় স্মৃতি মুসলিম বিশ্ব এবং বিশেষ করে তুর্কিরা আজও ভুলতে পারেননি।ইস্তাম্বুল বিজয় 566 বছর স্মরণে তাই সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

29 শে মে ছিল প্রাচীন এই নগরীর 566 বছর পূর্তি দিবস।
বুধবার মুসলিম বিশ্বের প্রভাবশালী নেতা ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট তার দেশের জনগণ এবং মুসলিম বিশ্বের সবাইকে ইসলামের বিজয়ের শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইটারে লিখেছেন ইস্তাম্বুল বিজয় দিবসে সবাইকে শুভেচ্ছা জানাই যা ইতিহাসের পথ পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছিল ইস্তাম্বুল বিজয় যুগের অবসান ঘটে আরেকটি নতুন যুগের গোড়াপত্তন করতে পেরেছিল।

উক্ত টুইটে এসিড এর দোকান অভিযানের আমির সুলতান মোহাম্মদ দ্বিতীয় এবং তার বীর সেনানী সহযোগীদের প্রতি মহান আল্লাহ তাআলার রহমত করুণা প্রত্যাশা করেন।

উল্লেখ্য প্রতি বছর 29 শে মে তুরস্কের জনগণ ইস্তাম্বুলের বিজয় দিবস পালন করে আজকের বর্তমান রাজধানী আঙ্কারা হলেও প্রাচীন নগরী ইস্তাম্বুল তুরস্ক অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচিত।
উসমানীয় সাম্রাজ্যের স্বর্ণযুগের স্মৃতি বিজড়িত ইস্তাম্বুল আজও দাঁড়িয়ে আছে আপন মহিমা।

No comments:

Post a Comment

Home