নিউজিল্যান্ডের পার্লামেন্টে কোরআন তেলাওয়াতকারী মাওলানা আশরাফ আঈলী থানবী (রহ:) এর বংশধর - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Tuesday, 19 March 2019

নিউজিল্যান্ডের পার্লামেন্টে কোরআন তেলাওয়াতকারী মাওলানা আশরাফ আঈলী থানবী (রহ:) এর বংশধর


মাওলানা এহতেশামুল হক থানবী

নিউজিল্যান্ডে খ্রিস্টান সন্ত্রাসবাদি কর্তৃক মসজিদে নামাজ রত মুসল্লিদের ওপর বর্বরোচিত হামলার পর প্রথমবারের মতো অধিবেশনে বসেছে নিউজিল্যান্ড পার্লামেন্ট। দেশটির নিয়মের ব্যতিক্রম ঘটিয়ে এবারের অধিবেশন শুরু হয় মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ আল কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে।

পবিত্র কালামে পাক শরীফ থেকে তেলাওয়াত করেন উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠতম বুজুর্গ হাকীমুল উম্মত হযরত মাওলানা আশরাফ আলী থানভী রহমাতুল্লাহ এর নাতি মাওলানা তানভীরুল হক থানবী।

মাওলানা তানভীরুল হক হলেন হযরত মাওলানা এহতেশামুল হক থানবী রহমতুল্লাহ আলাইহির সন্তান। মাওলানা এহতেশামুল হক থানবী রহমাতুল্লাহি ছিলেন হাকীমুল উম্মত হযরত আশরাফ আলী থানভী রহমাতুল্লাহ এর ভাগ্নে। মাওলানা এহতেশামুল হক থানবী উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠতম বুজুর্গদের মধ্যে অন্যতম।
তিনি পাকিস্তান আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়া আলেমদের একজন ছিলেন। তিনি অখন্ড পাকিস্তান আমলে নেজামে ইসলাম পার্টির মুখপত্র দায়িত্বে ছিলেন। হাকীমুল উম্মত আশরাফ আলী থানবীর উত্তরাধিকারী মাওলানা এহতেশামুল হক থানবী হাজার ১৯৮০ সালে পাকিস্তানে ইন্তেকাল করেন।

মাওলানা তানভীরুল হক থানবীর সুমধুর কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয়ে পার্লামেন্টের স্বাভাবিক ভাবে চলতে থাকে। এই দিন পার্লামেন্ট ভাষণে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আর ডান মসজিদে খ্রিস্টান সন্ত্রাসীদের হামলায় হতাহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও একাত্মতা প্রকাশ করেন। একই সাথে ওই ঘটনার হামলাকারী ব্রেন্ডন ট্যারেন্ট কে বাধা দিতে গিয়ে নিহত হওয়া নাঈম রশিদের আত্মত্যাগের বিষয়টিও স্মরণ করেন। হামলাকারী ক্রিস্টান সন্ত্রাসবাদীর নাম কখনোই মুখে নিবেন না জানিয়ে তিনি বলেন হত্যাকাণ্ডের ভেতর দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এই হামলাকারী অনেক কিছু অর্জন করতে চেয়েছেন তার মধ্যে একটি হলো কুখ্যাতি। সেই কারণে আপনারা কখনো তার নাম আমার মুখে শুনবেন না সে একজন সন্ত্রাসী সে একজন ক্রিমিনাল সে একজন চরমপন্থী যখন আমি বক্তৃতা দিব তখন তার নাম নেব না।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে আসসালামু আলাইকুম বলে বক্তৃতা শুরু করেন। এর মাধ্যমে তিনি মুসলমানদের জন্য শান্তির বার্তা পাঠান। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তার দেশের জনগণকে ওই সন্ত্রাসীর নাম মুখে না নেয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন ওই সন্ত্রাসীর নাম না নিয়ে বরং যারা নিহত হয়েছেন তাদের নাম উচ্চারণ করুন।

শুক্রবার ব্রেন্টন  নামে যে সন্ত্রাসী দুটি মসজিদে গুলি চালিয়ে অন্তত ৫০ জনকে হত্যা করেছে তার কাছে মোট পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্র ছিল এসব অস্ত্রের কোন কোন দেশে অনলাইনে কিনেছিল নিহতদের বেশিরভাগ নাগরিক পাকিস্তান বাংলাদেশ ভারত ও সোমালিয়ার এ ঘটনার পর দেশের আইন ও বদলানোর পদক্ষেপ নিয়েছে নিউজিল্যান্ড সরকার।


No comments:

Post a Comment

Home