রাশেদ খান মেননকে গ্রেফতার এবং তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ - খবরের অন্তরালে

জাতীয়

সর্বশেষ সংবাদ

Wednesday, 6 March 2019

রাশেদ খান মেননকে গ্রেফতার এবং তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ

জাতীয় সংসদে কওমি মাদ্রাসাকে বিষবৃক্ষের সাথে তুলনা ইসলামী অনুশাসন কে মোল্লাতন্ত্র ও আল্লামা শফি সহ আলেম সমাজকে কটাক্ষ করে ওয়ার্কার্স পার্টির প্রেসিডেন্ট রাশেদ খান মেননের উস্কানিমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করেছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন।

গতকাল বুধবার বিকাল 3 টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলপূর্ব সমাবেশে সভাপতির ভাষণে দলীয় আমির হযরত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ হাফেজ্জী হুজুর বলেন।জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে কাদিয়ানীদের দোসর রাশেদ খান মেনন কোরআন সুন্নাহর বিধান ও ইসলামী অনুশাসন কে মোল্লাতন্ত্র আখ্যায়িত করে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলকে অপমান করেছেন। তিনি বলেন আমি আশাবাদী প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আল্লাহ রাসুল এবং ইসলামকে অবমাননা করায় রাশেদ খান মেননকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করবেন।
তিনি আরো বলেন এই ধরনের বেয়াদব জাতীয় সংসদের সদস্য থাকতে পারে না। অনতিবিলম্বে রাশেদ খান মেননের সংসদ সদস্য পদ বাতিল ও তার বিচার করে বিক্ষুব্ধ জনতাকে শান্ত করবেন। তিনি বলেন ৯৩ ভাগ মুসলমানের প্রতিনিধিত্বশীল ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে সরকারের  সুসম্পর্কের মাধ্যমে দেশ উন্নতি অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। আর দেশ এভাবে এগিয়ে যাক তা নাস্তিক গোষ্ঠী রাশেদ খান মেনন গংরা সহ্য করতে পারছেন না তাই এই ধরনের বেয়াদবি করছে মুসলমান এবং ইসলাম সম্পর্কে।
রাশেদ খান মেনন ছবি ফেসবুক

রাশেদ খান মেননের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন খেলাফত আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, নায়েবে আমির মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, যুগ্ন মহাসচিব মাওলানা আব্দুল মান্নান, মাওলানা ফিরোজ আশরাফী, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, মাওলানা সানাউল্লাহ মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী, মাওলানা সাজিদুর রহমান ফয়েজী ও মাওলানা আকরাম প্রমুখ।

মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী বলেন এরকম জঘন্য বক্তব্য দিয়ে রাশেদ খান মেনন সংসদ সদস্য পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন অবিলম্বে তাকে সংসদ সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার করতে হবে। স্বাধীনতার পর থেকে তারা দেশে অরাজগতা সৃষ্টি করে আসছেন। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার চেষ্টা এ রাশেদ খান মেনন রাই করেছিল ‌। বঙ্গবন্ধুর চামড়া দিয়ে ডুগডুগি বাজাতে চেয়েছিল।তাদের বিচার না হওয়ার কারণেই আজ তারা বাংলাদেশে ওলামায়ে কেরাম এবং ইসলাম মুসলমানদের সম্পর্কে বাজে কথা বলার দুঃসাহস দেখিয়ে যাচ্ছেন।
মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী বলেন রাশেদ খান মেনন কাদিয়ানীদের দালাল ইহুদীদের ইসলামের দুশমনদের পৃষ্ঠপোষকতায় চলে তাদের রাজনীতি এইজন্য ইসলাম ও আলেম-ওলামাকে সহ্য করতে পারে না।মন্ত্রিত্ব হারিয়ে ক্ষোভে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য উম্মাদের মত বকে যাচ্ছেন। অবিলম্বে রাশেদ খান মেনন এর বক্তব্য সংসদের কার্যবিবরণী থেকে এক্সপাঞ্জ করতে হবে। অতি দ্রুত তাকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক বিচার না করলে সারা দেশে দাবানল এর মত ক্ষোভের আগুন ছড়িয়ে পড়বে।
মুফতি সুলতান মহিউদ্দিন বলেন রাশেদ খান মেননের এই বক্তব্য কোরআন হাদিস ও ওলামায়ে কেরামকে জঘন্যভাবে অপমানিত করা হয়েছে। তার এই বক্তব্য মুরতাদ তাসলিমা নাসরিন ও লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যকে ও হার মানিয়েছে।তসলিমা নাসরিন রা যেভাবে বাংলাদেশে টিকে থাকতে পারেনি সেও টিকে থাকতে পারবে না।স্বঘোষিত এই নাস্তিক ৯৩ ভাগ মুসলমানের বাংলাদেশের জন্য কলংক।অবিলম্বে তাকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনতে হবে এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করতে হবে। সমাবেশ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয় মিছিলটি হাই কোর্ট চত্বর প্রদক্ষিণ করে সচিবালয়ের সামনে আসলে পুলিশ কর্তৃক বাধাগ্রস্ত হয় প্রেসক্লাবের সামনে এসে দোয়ার মাধ্যমে সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়। উপস্থিত তৌহিদী জনতা কুশপুত্তলিকা দাহ করে এবং তার ছবিতে জুতা পিটা করা হয়।

No comments:

Post a Comment

Home